Mon. Jun 27th, 2022

পঞ্চগড়ে সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে হামলার শিকার নারী সাংবাদিক সহ ৪ সংবাদকর্মী


উমর ফারুক পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি :স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ের খবর শুনে স্ত্রী শ্বশুর বাড়িতে গেলে নির্যাতনের শিকার হয় এমন সংবাদের ভিত্তিতে  সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলা ও মারপিটের শিকার হলেন, সংবাদকর্মী সুকুমার বাবু দাস daily bangladesh post ও ক্রাইম রিপোর্ট -২৪.কম   মোঃ সইনুল রহমান আকাশ, দৈনিক ধ্রুব বাণী, মোছাঃ শিউলি আক্তার, মুক্তি টিভি, মোঃ উমর ফারুক, দৈনিক নাগরিক ভাবনা’  দৈনিক মানবাধিকার সংবাদ ও সৃষ্টি  টেলিভিশন এরা সবাই পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি । শুক্রবার ( ২৭ জুন) বিকেলে আটোয়ারী উপজেলার  আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের সরকার পাড়া গ্রামে তথ্য সংগ্রহের সময়  এ ঘটনা ঘটে ।  এ সময় সাংবাদিকদের ক্যামেরা ,  ক্যামেরা স্ট্যান্ড ও বুম ভাংচুর করে ।  একটি ক্যামেরা একটি ক্যামেরা স্ট্যান্ড  দুটি হেলমেট ,  নারী সংবাদকর্মীর শিউলির গলায় থাকা সোনার হার  একটি নাকফুলও দুটি কানের দুল  খুলে নেন । এছাড়াও দুজনের মানি ব্যাগে থাকা প্রায় ১৫ হাজার টাকা এবং চার জনের মোবাইল ফোন গুলি  কেড়ে নিয়ে প্রায় ০৯/১০ ঘন্টা সংবাদকর্মীদের জিম্মি করে রাখেন।  হামলার শিকার  daily bangladesh post  এর পঞ্চগড়  জেলা প্রতিনিধি  সুকুমার বাবু দাস সহ আরও  তিন সংবাদ কর্মী জানান,  শুক্রবার বিকেলে আটোয়ারী উপজেলার  আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের সরকার পাড়া গ্রামের মৃত দ্বিজেন্দ্রনাথ সিংহ (দালানু) এর ছেলে নারদ চন্দ্র সিংহ (৩২) এর সাথে বোদা উপজেলার ময়দানদিঘী পুটিমারি গ্রামের কলিন চন্দ্র রায় এর কলেজ পরুয়া মেয়ে প্রতিমা রানীর সাথে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এমন অবস্থায় তারা অভিভাবকদের অবগত না করেই কোর্টে এফিডেভিট ও হিন্দু বিবাহ রেজিস্ট্রার করে ঠাকুরগাঁও জেলায় ভাড়া বাড়িতে বসবাস করেন । বিবাহ বিষয়টি উভয় পরিবারের মধ্যে জানাজানি হলে, নারদ এর পরিবারের লোকজন মেনে না নেওয়ায় নারদ এর স্ত্রী প্রতিমা রানীকে সুকৌশলে প্রতিমা রানীর বাবার বাসায় নিয়ে আসে এবং নারদ বলে যে পরিবারের লোকজনকে ম্যানেজ করে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহ করে বিদায় নিয়ে যাবে  একথা বলে প্রতিমা রানীর পরিবারকে আসস্ত করে প্রতিমা রানী কে রেখে চলে যায়। বাবার বাসায় থাকা কালীন প্রতিমা রানী বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পারে যে তার বিবাহিত স্বামী বিবাহ বিদায় না নিয়ে গিয়ে গোপনে অন্যত্র বিবাহ করে  ঘর সংসার করতে থাকে। প্রতিমা রানী দ্বিতীয় বিয়ে করার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য শুক্রবার বিকেলে স্বামী নারদের বাড়িতে গিয়ে নারদকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে নারদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। সেই সময় প্রতিমা রানী নাৱদের কথায় প্রতিবাদ করলে  নারদ ও তার পরিবার ও দ্বিতীয় বউয়ের পরিবারের লোকজন উত্তেজিত হয়ে বাঁশের লাঠি দ্বারা প্রতিমা রানীকে এলোপাথাড়ি ভাবে মারপিট  করতে থাকে । প্রতিমা রানীর ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে আসলে কে বা কাহারা সংবাদকর্মী মোঃ সইনুল রহমান আকাশকে সংবাদ দিলে  সইনুল সহ আরো তিন সংবাদকর্মী কে নিয়ে তৎক্ষণাৎ মোটরসাইকেল যোগে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ক্যামেরা নিয়ে তথ্য সংগ্রহের জন্য এবং প্রতিমা রানী কে মারপিট বিষয়টি ক্যামেরায় ভিডিও ধারণ  করার সময় তিন  ইউপি সদস্য সহ, নারদ চন্দ্র সিংহ, সাবুল চন্দ্র সিংহ, নিতাই চন্দ্র সিংহ, আদিত্য চন্দ্র সিংহ, শুধু চন্দ্র সিংহ, বুধু চন্দ্র সিংহ, কেশব চন্দ্র সিংহ, জগন্নাথ বর্মন ১৫/১৬ জন লোক এসে ঘিরে ধরে। তারা জোরপূর্বক ক্যামেরা পার্সনসহ আমাকে টেনে হিঁচড়ে  তাদের বাসার আঙ্গিনায় নিয়ে যায় এবং সেখানে আটকে রেখে মারপিট করে। এক পর্যায়ে আমাদের কাছে থাকা ক্যামেরা ও  ক্যামেরার স্টান ভাংচুর করে তারা।  এ বিষয়ে ওই ইউনিয়নের তিন ইউপি সদস্য তাদের সাথে জড়িত ।  তাদের সাথে হাত মিলিয়ে টাকার লোভে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড এর মেম্বার মোঃ শাহজাহান আলী (টিএনও), একই ইউনিয়নের মেম্বার প্রদীপ চন্দ্র সিংহ ও মেম্বার মোঃ আসাদুজ্জামান রাজু এদের সহযোগিতায় মারপিট ও হেনেস্তার পর প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ১শত টাকা মূল্যের পাঁচটি নন-জুডিশিয়াল ফাঁকা  স্ট্যাম্পে ও একটি সাদা কাগজে সংবাদকর্মীদের স্বাক্ষর নিয়ে ছেড়ে দেয়।  অতঃপর সংবাদকর্মীরা  চিকিৎসার জন্য আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়।  এবিষয়ে আটোয়ারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সোহেল রানা বলেন,  সাংবাদিকদের উপর হামলার বিষয়ে  সাংবাদিকরা থানায় এসে একটি এজাহার দিয়েছে  সেই এজাহার পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ হামলার সাথে যারাই জড়িত থাকুক না কেন তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

উপদেষ্টা মন্ডলীঃমোঃ দেলোয়ার হোসেন খাঁন(হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ,প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান)
ডঃ দিলিপ কুমার দাস চৌঃ ( অ্যাডভোকেট,সুপ্রিম কোর্ট ঢাকা)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতিঃ অ্যাডভোকেট সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী ।।আইন সম্পাদকঃ অ্যাডভোকেট আবু সালেহ চৌধুরী।।
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: আজির উদ্দিন (সেলিম)
নির্বাহী সম্পাদক: দিলুয়ার হোসেন।। ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মোছাঃ হেপি বেগম ।I বার্তা সম্পাদক: মোঃ ছাদিকুর রহমান (তানভীর)
প্রধান কার্যালয় ২/২৫, ইস্টার্ণ প্লাজা,৩য়-তলা ,আম্বরখানা সিলেট-৩১০০।
+8801712-783194 dailyhumanrightsnews24@gmail.com