Sun. Jul 25th, 2021

করোনার ভয়াবহ রূপ বিস্তার।

নিজস্ব প্রতিবেদক কয়রা (খুলনা) বিভাগ। মাষ্টার মোক্তার হোসেন।
কয়রা উপজেলা ও পার্শ্ববর্তী পাইকগাছায় করোনা পরিস্থিতি দিন দিন ভয়াবহ রূপ নিয়ে ধাবিত হচ্ছে। শনাক্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে চলেছে ।বাড়ছে জ্বরের প্রাদুর্ভাব।
পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে জ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত হচ্ছে পরিবারের সবাই ।এর মধ্যে শিশুদের সংখ্যা বেশি ।
 জ্বরের রোগীর সংখ্যা বাড়ার কারণে জনসাধারণের মধ্যে করোনা ভীতি ছড়িয়ে পড়ছে।পাড়ায় পাড়ায় খবর নিয়ে জানা গেছেজ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত অধিকাংশ মানুষ।
কয়রা ও পাইকগাছায় করো না রোগীর সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই যাচ্ছে আক্রান্ত রোগীরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে না গিয়ে গ্রাম্য ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।
কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে ২০জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০জন রোগী করোনা পজিটিভ হয়েছে।এখন পর্যন্ত করণা পজিটিভ হয়েছেন ১৪৮ জন মারা গেছেন ১০জন।
চিকিৎসকরা জানান জ্বর সর্দি কাশি গলা ব্যথা নিয়ে অহরহ রোগী ভর্তি হচ্ছে, তবে এর সংখ্যা কম। করোনার নমুনা দিতে মানুষের  অনীহা থাকায় ডাক্তাররা রোগীর প্রকৃত সংখ্যা নির্ণয় করতে পারছেন না।
গত কয়েকদিন ধরে উপজেলায় শনাক্তের হারদাঁড়িয়েছে ৫০শতক । কয়রা উপজেলায় হঠাৎ করে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় স্থানীয় প্রশাসন খুবই দুশ্চিন্তায় রয়েছে। থানা ইনচার্জ রবিউল ইসলাম কঠোর ভাবে মাক্স ব্যতীত বাইরে যাওয়াজনসাধারণের জরিমানা করা হবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সুদীপ বালা জানান এখানে করণা বেড়ে যাওয়ার কারণ হচ্ছে এলাকায় জনসাধারণের স্বাস্থ্যবিধি মানতে অনীহা। হাটে বাজারে কাটায় অবাধে চলাফেরার কারণে করণা সংক্রমণে  আক্রান্ত হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে আক্রান্তের হার কম হবে। করোনা থেকে মুক্তি পেতে গণ সচেতনতা জরুরি।
কয়রা উপজেলার নারায়নপুর থেকে স্থানীয়রা জানান, প্রতিটি ঘরে ঘরে জ্বর সর্দি-কাশি ও গলা ব্যথায় অহরহ ভুগছেন। পল্লী চিকিৎসকের পরামর্শে কিছু কিছু রোগী উপশম পাচ্ছেন। কিন্তু স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভয়ের কারনে যেতে অনীহা প্রকাশ করেছেন।
এদিকে ঔষধের দোকান থেকে জানা গেছে, তারা চাহিদা অনুযায়ী ওষুধ রুগীদের হাতে দিতে পারছেন না। সরবরাহ বন্ধ থাকার কারনে। চিকিৎসকের নির্দিষ্ট ঔষধ তারা পাচ্ছেন না।আগামী দিন থেকে ৭দিনের শাটডাউনের ,কঠোর নির্দেশনা শুনে গ্রাম গঞ্জের মানুষের মাঝে হতাশার বিস্তার ঘটছে বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

উপদেষ্টা মন্ডলীঃমোঃ দেলোয়ার হোসেন খাঁন(হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ,প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান)
ডঃ দিলিপ কুমার দাস চৌঃ ( অ্যাডভোকেট,সুপ্রিম কোর্ট ঢাকা)
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতিঃ অ্যাডভোকেট সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী ।।আইন সম্পাদকঃ অ্যাডভোকেট আবু সালেহ চৌধুরী।।
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: আজির উদ্দিন (সেলিম)
নির্বাহী সম্পাদক: দিলুয়ার হোসেন।। ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মোছাঃ হেপি বেগম ।I বার্তা সম্পাদক: মোঃ ছাদিকুর রহমান (তানভীর)
প্রধান কার্যালয় ২/২৫, ইস্টার্ণ প্লাজা,৩য়-তলা ,আম্বরখানা সিলেট-৩১০০।
+8801712-783194 dailyhumanrightsnews24@gmail.com