Sat. Nov 28th, 2020

পটুয়াখালী জেলা তিন আসনের ত্যাগী আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে !

নিজস্ব প্রতিনিধি :-মো শামীম হাওলাদার, গলাচিপা (পটুয়াখালী ) পটুয়াখালীর তিন আসনটি স্বাধীনতা থেকে এ পযর্ন্ত আওয়ামীলীগের ঘাটী হিসেবে বাংলাদেশে পরিচিতি ! এই গলাচিপা ও দশমিনা আসেনে আওয়ামীলীগের প্রথম সাবেক মরহুম আ: বারেক মিয়া সংসদ সদস্য ছিলেন ! তারপর দ্বিতীয় সংসদ সদস্য ছিলেন মরহুম মোঃ আনোয়ার হোসেন ! তারপরও সাবেক কেন্দ্রীয় ছাএলীগ সাধারণ সম্পাদক জনাব মোঃ আ.খ.ম জাহাঙ্গীর হোসাইন বার বার করে তিন বার একধাপে সংসদ সদস্য ছিলেন এবং বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী ছিলেন ! তারপরও ভাগ্যক্রমে বাংলাদেশের সমালিচোত গোলাম মাওলা রনি যায়গা করে নেন ! এর পরে আবার ছাএনেতা আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন পুনরায় আসনটি ফিরিয়ে নেন ! আবারও বতর্মান নির্বাচন কমিশনারের ইশারায় তার ভাগিনা এস এম শাহাজাদাকে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন দিয়ে থাকেন এবং নির্বাচিত করেন ! তাই বতর্মানে এই আসনে চলছে ত্যাগী আওয়ামীলীগের কোনঠাসা ও রাজনীতি থেকে বিদায়ের ঘন্টা ! গলাচিপা ও দশমিনা উপজেলায় দেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন ইউনিয়নে বতর্মান এমপির অরাজনৈতিক প্রতিনিধি সহ উপজেলা চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি ! এবং এই প্রতিনিধিদের কাজ হচ্ছে.বিভিন্ন মিটিং মিছিলে বিভিন্ন দল থেকে আসা যাকে নব্য আওয়ামীলীগ হিসাবে বলা হয় ! বতর্মানে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে বিভিন্ন ইউনিয়নে অযোগ্যতা.অরাজনৈতিক.ঢাকার বসবাসরত মাছের ব্যাবসায়ী.কাটুন ব্যাবসায়ী.বাসের কন্টেকটার.হকার ব্যাবসায়ী সহ নতুন পয়সা ওয়ালা লোক এরা কে কি করে এটা না ভেবেচিন্তে করে এদের কে আগামী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী বলে বতর্মান উপজেলার কিছু সার্থবাদী নেতারা আশ্বাস দিয়ে যাচ্ছেন ! সেই মোতাবেক এই চেয়ারম্যান প্রার্থীরা কয়েক মাস পর পর এসে এলাকায় দুশো পাচশো চা খাইয়ে ভির জমিয়ে ছবি তুলে ফেসবুকে ছেড়ে দিয়ে জনপ্রিয়তা বাড়ানো চেষ্টা করতেছে ! এরা নিজেরাও কখনও ভাবেনি যারা এই এলাকায় সকল সময় কঠোর পরিশ্রম দিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে থেকে বিপদকালে দেখে শুনে রাতদিন পাশাপাশি থেকে দুংখ সেয়ার করেছে এবং প্রতিদিন চায়ের আড্ডায় হাজার হাজার টাকা খরচ করে আসছে এবং আওয়ামীলীগের দলীয় রাজনীতি তে এরাই সত্যিই ত্যাগস্বীকার করে রাজনীতি করে মাঠে ঘাটে তাই উপর মহলের কিছু সার্থবাদী নেতাদের আশাবাদী কিছু নতুন নব্য আওয়ামীলীগ যেমন বিএনপি সরকার ক্ষমাতায় থাকাকালিন তাদের বাবা গ্রাম সরকারের ভূমিকা পালন করেছেন আবার কিছু চেয়ারম্যান প্রার্থী পাশের বাড়ির বিএনপি জামায়াতের বড় মিয়ার শিষ্যদের ভূমিকা পালন করেছেন ! আজ বতর্মানে বিভিন্ন ইউনিয়নের এলাকায় ঘুরে এমন খবর পাওয়া যায় ! তাই যারা পূর্ব পুরুষ থেকে বঙ্গবন্ধুর অনুশারী নৌকা মার্কার ভক্ত.ও উন্নয়নশীল দেশের আওয়ামীলীগ সভাপতি শেখ হাসিনার তৃণমূল যোগ্যকর্মী হিসাবে কাজ করিতেছে তাদের দলীয়  কোন সভায় কোন মিটিংয়ে মূলয়ন করা হচ্ছে না ! তাই ত্যাগস্বীকারি আওয়ামীলীগের মৃত্যুদণ্ড হয়েছে জীবন্ত লাশ ! এবং বতর্মান অন্যান্য দলের কোন প্রার্থীদের কর্মীদের তৃণমূল পর্যায় মাঠে দেখা যায়নি !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

উপদেষ্টা মন্ডলীঃমোঃ দেলোয়ার হোসেন খাঁন(হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ,প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান)
ডঃ দিলিপ কুমার দাস চৌঃ ( অ্যাডভোকেট,সুপ্রিম কোর্ট ঢাকা)
রজত কান্তি চক্রবর্তী সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতিঃ অ্যাডভোকেট সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী ।।আইন সম্পাদকঃ অ্যাডভোকেট আবু সালেহ চৌধুরী।।
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: আজির উদ্দিন (সেলিম)
নির্বাহী সম্পাদক: মোস্তাক আহমদ।। ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মোঃ দিলোয়ার হোসেন ।I মহিলা সম্পাদক: মোছাঃ হেপি বেগম ।I বার্তা সম্পাদক: .........................
প্রধান কার্যালয় ২/২৫, ইস্টার্ণ প্লাজা,৩য়-তলা ,আম্বরখানা সিলেট-৩১০০।
+8801712-783194 ... 01304006014 dailyhumanrightsnews24@gmail.com
JS security