Wed. Jun 3rd, 2020

নবীগঞ্জ টু সিলেট বিআরটিসি বাস চালু করার দাবী ভুক্তভোগী যাত্রীদের

শাহরিয়ার আহমেদ শাওনঃ বিভাগীয় শহর সিলেট নিত্য প্রয়োজনীয় কাজ করতে প্রায় সময়েই নবীগঞ্জ হতে সিলেট যেতে হয়। আর সেই সিলেট যেতে যাত্রীদের পোহাতে হয় কতো ভোগান্তি। বছরের পর বছর ধরে ভোগান্তি  পোহাতে হচ্ছে ভুক্তভোগী নবীগঞ্জ যাত্রীদের। তাই ভোগান্তি কমাতে নবীগঞ্জ যাত্রী সাধারন বিআরটিসি বাস নবীগঞ্জ টু সিলেট চালু করার দাবি জানিয়েছেন। নবীগঞ্জ থেকে সিলেট যেতে হলে আউশকান্দি করে বাইবাস রোডে সিলেট যেতে হয়। আর যাতায়াত ব্যবস্থার জন্য রয়েছে লোকাল সার্ভিস  হবিগঞ্জ এক্সপ্রেস বাস। আর সেখানেই যাত্রী ভোগান্তি চরমে।  তাদের অমানবিক আচরনে যাত্রীদের অতিষ্ঠ করে তুলে।নবীগঞ্জ হতে প্রতিদিন হাজার দুইয়েক যাত্রী সিলেট যাতায়াত করেন। কিন্তু হবিগঞ্জ এক্সপ্রেস কতৃপক্ষ নবীগঞ্জ যাত্রীদের কোন গুরুত্বই আরহন করেন না।সিলেট থেকে নবীগঞ্জ আসতে একেই ভোগান্তি টাকা দিয়ে টিকেট কাটার পরও বসতে হয় বাসের একেবারে লাষ্টের বাম্পার সিটে। শুধু একানেই শেষ নয় হবিগঞ্জ এক্সপ্রেস কাউন্টার হতে প্রতিটা বাসের জন্য মাত্র  ১০ টা টিকেট দেওয়া হয় নবীগঞ্জ গামী যাত্রীদের। আর একি অবস্থা অসুস্থ রোগী বা বৃদ্ধ মানুষদের জন্যও গাড়ী খালী থাকা সত্যেহ গাড়ীর লাষ্টে বসতে হয়। অসুস্থ অথবা বৃদ্ধ যাত্রীদের।তাদের প্রতিও বাস কতৃপক্ষ অমানবিক আচরন প্রকাশ করেন। অনেক সময় যাত্রীরা বাক বির্তক হলে বাস কতৃপক্ষ চরাও হতেও দ্বিধাবোধ করেন না। নবীগঞ্জের যাত্রী সাধারন হবিগঞ্জ এক্সপ্রেস গাড়ীর কতৃপক্ষের কাছে জিম্মি। এই জিম্মি দশা হতে বেড় হতে বিআরটিসি বাস চালু করা ছাড়া কোন বিকল্প নেই।এহেন কমর্কান্ড প্রায় সময়েই যোগাযোগ মাধ্যম ফেচবুক সহ সোস্যাল মিডিয়ায় ভুক্তভোগী যাত্রীগন হবিগঞ্জ এক্সপ্রেস কতৃপক্ষের আচরনের ক্ষোভ প্রকাশ করেন।সিলেট মেট্রপলিটন ইউনিভার্সিটির ছাত্র  মাহফুজ চৌধুরী সাংবাদিককে জানান লেখা পড়ার সুবাধে প্রায় দিনেই নবীগঞ্জ থেকে সিলেট যেতে হয়। কিন্ত সিলেট থেকে নবীগঞ্জ আসতে টিকেট পাওয়া যায় না। অনেক সময় কাউন্টারে টিকেট শেষ হয়েগেছে জানিয়ে দেয় আবার ভাড়া দ্বীগুন দেওয়া হলে নবীগঞ্জ আসা যায়।নিরব তালুকদার নামের আরেক যাত্রী জানান বাবা অসুস্থ সিলেটে ডাক্তার দেখাতে নিয়ে আসছিলাম কিন্তু ফিরার পথে  কোন সিট না পাওয়ায় দাড়িয়েই যেতে হচ্ছে। কাউন্টারে নবীগঞ্জ যাত্রীদের জন্য  ১০ টা সিট বরাদ্দ থাকলেও নবীগঞ্জ গামী যাত্রীদের বলে দেওয়া হয় বুকিং হয়েগেছে কিন্তু খুজ নিয়ে দেখা যায় অনেক সিট নবীগঞ্জ গামী যাত্রীদের না দিয়ে অন্যন দূরর্বতী  যাত্রীদের ভাড়া বেশী পাওয়ার জন্য দিয়ে দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে    পানিউন্দা বাহুবলের টিকেট বেশী দামে কিনে  আসতে হয় অনেক নবীগঞ্জ গামী যাত্রীদের। এই অবস্থায় প্রায় দিনেই ভোগান্তি পড়তে হয় যাত্রীদের। ভাড়া বেশী দেওয়া টিকেট না পাওয়া হেলপার ও বাস চালকের অমানবিক আচরন নবীগঞ্জ যাত্রী সাধারন এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

উপদেষ্টা মন্ডলীঃমোঃ দেলোয়ার হোসেন খাঁন(হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ট্রাস্ট অব বাংলাদেশ,প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান)
ডঃ দিলিপ কুমার দাস চৌঃ ( অ্যাডভোকেট,সুপ্রিম কোর্ট ঢাকা)
রজত কান্তি চক্রবর্তী সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতিঃ অ্যাডভোকেট সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী ।।আইন সম্পাদকঃ অ্যাডভোকেট আবু সালেহ চৌধুরী।।
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: আজির উদ্দিন (সেলিম)
নির্বাহী সম্পাদক: মোস্তাক আহমদ।। ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: মোঃ দিলোয়ার হোসেন ।I মহিলা সম্পাদক: মোছাঃ হেপি বেগম ।I বার্তা সম্পাদক: .........................
প্রধান কার্যালয় ২/২৫, ইস্টার্ণ প্লাজা,৩য়-তলা ,আম্বরখানা সিলেট-৩১০০।
+8801712-783194 ... 01304006014 dailyhumanrightsnews24@gmail.com
JS security